তজুমদ্দিনে দুদকের গণশুনানি

0
64

হেলাল উদ্দিন লিটন,তজুমদ্দিন ।। ভোলার তজুমদ্দিনে দুদকের গণশুনানি সরকারী অফিস সমুহে সেবা ও সুবিধা প্রাপ্তির ক্ষেত্রে সৃষ্ট সমস্যা নিষ্পত্তি,স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা মূলক প্রশাসনিক ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষে ভোলার তজুমদ্দিনে দুদকের গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার দিনভর উপজেলা পরিষদের হলরুমে এ গণশুনানি অনুষ্টিত হয়। আদালতের আদলে এ শুনানি করেন দূর্নীতি দমন কমিশনের মহাপরিচালক (তদন্ত-১) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল বিভাগীয় দূর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক জুলফিকার আলী ও ভোলা জেলা প্রশাসক মাসুদ আলম সিদ্দিকী।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বের গুশুনানীতে বক্তৃতা করেন, বরিশাল বিভাগ দূর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক জুলফিকার আলী, তজুমদ্দিন উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন দুলাল, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ।

শুনানিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দুদক মহাপরিচালক বলেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কিছু সংখ্যক দূর্নীতিগ্রস্থ কর্মকর্তা-কর্মচারীর কারণে দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। আমরা দেশটাকে দূর্নীতি থেকে মুক্ত করে সরকারী সকল সেবা জনগণের জন্য নিশ্চিত করতে চাই।

গণশুনানিতে ১৪টি অভিযোগ উপস্থাপিত হয়। এরমধ্যে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও প্রধান শিক্ষক ফরহাদ হোসেনের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তুলেন মোঃ রিয়াজ। পরে অভিযোগটি অধিকতর তন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তাকে প্রধান করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি  করা হয়। এ কমিটিকে আগামী ১ সপ্তাহের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের আওতায় একটি মাদ্রাসার অধ্যক্ষের অবৈধ সার্টিফিকেট ও অনিয়মের অভিযোগ এবং প্রকল্প বাস্তবায়ণ কর্মকর্তার দপ্তর সংশ্লিষ্ট গুচ্ছগ্রাম বিষয়ক অভিযোগ দুদক তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তীতে ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষনা দেন।

LEAVE A REPLY