তজুমদ্দিনে প্রতিবেশী কতৃক গৃহবধূকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম

0
324

তজুমুদ্দিন প্রতিনিধি।। ভোলার তজুমদ্দিনের লামছি শম্ভুপুরে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করেছে তারই প্রতিবেশী মৃত মুনাফের ছেলে আলম(৪০)। আহত গৃহবধূ সঞ্চিতা ভুলু দাসের বাড়ির ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বিপ্লব দাসের স্ত্রী। মারাত্মক জখম অবস্থায় তাকে তজুমদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পলেক্সে ভর্তি করা হয়।  এ ঘটনায় তজুমদ্দিন থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। যার নম্বর ৮৭১/১৯, তারিখ ঃ ২৩-০৬-১৯। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে নিজের বাড়ি ফেরার সময় সঞ্চিতার স্বামী বিপ্লব দাসের সম্পর্কে অপমানসূচক কথা বলে ও সঞ্চিতাকে দেখা মাত্রই অশ্লীল ভাষায় গালি গালাজ করে পাশে বাড়ির ভাড়াটিয়া আলম। এর প্রতিবাদ করতে গেলে চুলের মুঠো ধরে তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় বাঁশ দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে সে। মূহুর্তের মধ্যেই মাটিতে লুটিয়ে পড়লে এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। অন্যদিকে ক্ষিপ্ত আলম প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়।

তজুমদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পলেক্সের মহিলা অতিরিক্ত ১ নং বেডে ভর্তি গৃহবধূ সঞ্চিতা রানী দাসের সম্পর্কে জানতে চাইলে আবাসিক সার্জন জাকির হোসেন জানান তাকে আমরা ভোলা সদর হাসপাতালে রেফার করবো। তার শারীরিক অবস্থা তেমন ভালো নয়। এ ঘটনায় ভুলু দাসের বাড়ির লোকজন আতংকিত অবস্থায় আছেন তারা এ প্রতিবেদকের মাধ্যমে মাননীয় সাংসদ দ্বীপবন্ধু নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন মহোদয়ের এবং ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন।

LEAVE A REPLY