ভোলার ৩ উপজেলায় শান্তিপূর্ন ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

0
177

রাকিব উদ্দিন অমি,ভোলা প্রতিনিধি।।  ভোলার লালমোহন, তজমুদ্দিন ও দৌলতখান উপজেলায় শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোট গ্রহন চলছে। রবিবার (৩১ মার্চ) সকাল ৮টায় ভোটগ্রহন শুরু হয়ে তা চলছে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত। সকাল থেকেই কেন্দ্রগুলোতে ভোটাদের লাইন দেখা গেছে।

এখানকার ১২৪টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে সব কয়টি কেন্দ্রকে ঝুকিপূর্ন ঘোষনা করা হয়েছে। তবে ৭টি কেন্দ্র দ্বীপাঞ্চলে থাকায় সেটিকে অধিক ঝুকিপূর্ন। নির্বাচনী মাঠে ৫ স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব, কোস্টগার্ড ও বিজিবির পাশাপাশি নিয়োজিত থাকবে আনসার বাহিনীর সদস্যরাও।
চেয়ারম্যান পদে দুই উপজেলায় আ’লীগের একাধিক প্রার্থী থাকায় নির্বাচনী মাঠ শুরু থেকেই অনেকটা উত্তাপ্ত ছিলো। তবে জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী প্রার্থীরা।
সুত্র জানিয়েছে, জেলার ৫টি উপজেলার প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বনিদ্বতায় আগে থেকেই জয় লাভ করায় ৩১ মার্চ শুধু মাত্র ভোলার লালমোহন ও তজুমদ্দিন উপজেলা পরিষদের ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে ভাইস চেয়রম্যান পদে শুধু মাত্র দৌলতখান উপজেলায় ভোট হচ্ছে। এখানে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়বেন দুই প্রার্থী।
১৪টি ইউনিয়ন গঠিত এ লালমোহন ও তজুমদ্দিন উপজেলায় মুলত চেয়ারম্যান এবং ভাইচেয়ারম্যান পদে ২১ প্রার্থীর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হচ্ছে। এখানে চেয়ারম্যান পদে সরকারদলীয় ৪জন ও জাতীয় পার্টির এক প্রার্থী ভোটের মাঠে সক্রিয় থাকায় একদিকে যেমন সহিংসতার আশাংকা করা হচ্ছে অন্যদিকে নির্বাচনী মাঠও উত্তাপ্ত হয়ে উঠেছে। বহিগতদের আনাগোনা আর প্রভাব খাটানোর অভিযোগ তুলছেন ভোটাদের পাশাপাশি প্রার্থীরাও।
তজুমদ্দিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে সাবেক চেয়ারম্যান ও সতন্ত্র প্রার্থী মোশারেফ হোসেন (আ’লীগ) এবং নৌকার প্রতিকের প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ফজলুল হক দেওয়ান লড়ছেন।
অন্যদিকে লালমোহন উপজেলাতেও আ’লীগের দুই প্রার্থী প্রতিদ্বনিদ্বতা করছেন। এদের মধ্যে সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যন সতন্ত্র প্রার্থী অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম (আ’লীগ) ও বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ। এছাড়াও একানে জাতীয় পার্টির মাহাবুব এলাহাী প্রতিদ্বনিদ্বতা করছেন।
এদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৫ স্তরের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। দুই উপজেলার ১২৪ কেন্দ্রর মধ্যে সবগুলোই ঝুঁকিপূর্ন থাকায় মোতায়েন থাকবে কোস্টগার্ড, পুৃলিশ, বিজিবি, র‌্যাব ও আনসারসহ ৩হাজার ৩৮০ জন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী সদস্য।
এ ব্যাপারে রির্টানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকতা আলাউদ্দিন আল মামুন বলেন, শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোট গ্রহন চলছে কোথায় কোন অপ্রতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।
এদিকে দুই উপজেলায় ৩ লাখের অধিক ভোটারের রায়ে জয়ী হয়ে কে হাসবেন শেষ হাসি সেই প্রতিক্ষায় সবাই।

LEAVE A REPLY