ভোলায় নারি এমপি তৃনমূল এগিয়ে রেহানা ফেরদৌস

0
339

ভোলা প্রতিনিধি ॥ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোলা ১৫ সংরক্ষিত মহিলা আসনে সংসদ সদস্য হয়ে আর্থসামাজিক, সাংস্কৃতিক, নারীদের জীবনমান উন্নয়নসহ জনগনকে সঙ্গে নিয়ে মাননীয় প্রাধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তাবায়নে অংশ নিতে চায় ভোলার সংগীত জগৎ এর নক্ষত্র ও ভোলার সর্ব মহলের খুব পরিচিত বাংলাদেশ আওয়ামী যুব মহিলালীগের যুগ্ম আহবায়ক রেহানা ফেরদৌস। ইতিমধ্যে তিনি ভোলার বিভিন্ন সংগঠনের দায়িত্ব থেকে সমাজসেবা মূলক ব্যাপক কর্মকান্ড করে সর্বস্তরের মানুষের মন জয় করেছেন। ভোলা বাংলাবাজার ফাতেমা খানম কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষকতার পাশাপশি তিনি ভোলা জেলা আওয়ামী যুব মহিলালীগের যুগ্ম আহবায়ক পদে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এছাড়াও তিনি ভোলা জেলা ক্রিড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য, জেলা মহিলা ক্রিড়া সংস্থার নির্বাহী সদস্য, স্বপ্নপুরী সাংস্কৃতিক সংগঠকের সভাপতি, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সংগীত বিষয়ক প্রশিক্ষক, জেলা পল্লিবিদ্যুৎ সমিতির মহিলা পরিচালকসহ তিনি গুরুত্বপুর্ণ পদে রয়েছেন। শুধু রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক দক্ষতাই নয় শিল্প-সাহিত্য ও সাংস্কৃতিতে রয়েছে তার ব্যাপক পথচারনা। রাজনৈতিক পরিমন্ডলে সাংগঠনিক অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ নারী হিসেবে সবার কাছে বেশ পরিচিত। বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সচিব, ৬৯’র মহানায়ক, সাবেক সফল বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহম্মেদের হাত ধরে রাজনীতিতে আসা এক পরিবারের সদস্য। তাছাড়াও তিনি ভোলা জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি এ এইচ এম রফিকুল আমিন টুটুলের স্ত্রী এবং জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক, সাবেক মহিলা সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ও জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান কহিনুর বেগমের পূত্রবধু। এদিকে তার প্রার্থীতা ঘোষণার পর থেকে ভোলার সর্বমহলের জনগণের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দ বিরাজ করতে দেখা গেছে এবং গ্রাম পর্যায়ের বিভিন্ন চায়ের দোকান ও বিভিন্ন মহলে রেহানা ফেরদৌসকে নিয়ে ব্যাপক আলোচনা দেখা গেছে। এ ব্যাপারে রেহানা ফেরদৌস এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমাকে ভোলার তৃণমূল জনগন চায়। এখন যদি আমাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও ৬৯’র মহানায়ক সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী এবং ভোলার ২০ লক্ষ মানুষের নয়নের মনি আলহাজ্ব জননেতা তোফায়েল আহম্মেদের ভালবাসা ও তৃণমূল জনতার আস্থা নিয়ে জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হতে পারলে নারী শিক্ষা ও নারীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নিশ্চিত করণে কাজ করার পাশাপাশি ভোলা জেলা সংসদদের সঙ্গে থেকে মানুষের আত্ম-সামাজিক উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক উন্নয়ন ও জীবনমান উন্নয়নে রাজনৈতিক ও সাধারন মানুষকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করবো।

LEAVE A REPLY