রোহিঙ্গাদের ওপর জাতিগত নিধনযজ্ঞ চালানো হচ্ছে : জাতিসংঘ

0
206

বিবিসি : মিয়ানমারে নিরাপত্তার নামে চালানো অভিযানে রোহিঙ্গা মুসলমানদের লক্ষ্য বানানো হয়েছে। দেশটির এই অভিযানকে ‘জাতিগত নিধনের’ একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ বলে মনে করেছে জাতিসংঘ।

সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে এই কথাগুলো বলেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের প্রধান জাইদ রাদ আল হুসাইন।

এই  নিষ্ঠুর অভিযান বন্ধ করতে জাইদ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রতি জোর দাবি জানান।

বিবিসির কাছে জাইদ জানান, মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী নিরস্ত্র রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ-শিশুদের ওপর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে। সহিংসতার মধ্যে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে এসেছে তিন লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা।

গত ২৪ আগস্ট রোহিঙ্গা জঙ্গিরা রাখাইন রাজ্যের পুলিশ থানায় হামলা চালায় এবং ১২ জন নিরাপত্তা কর্মীকে হত্যা করে। এর পর থেকেই রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর সহিংসতা চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এদিকে দেশটির সেনাবাহিনী দাবি করেছে, রোহিঙ্গা জঙ্গিদের বিরুদ্ধে এই অভিযান চালানো হয়েছে। বেসামরিক রোহিঙ্গাদের ওপর হামলার বিষয়টি অস্বীকার করেন তাঁরা।

আল হুসেইন বলেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর এই অভিযান সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। রাখাইন রাজ্যে মানবাধিকার তদন্ত কর্মকর্তাকে প্রবেশ করতে বাধা দিয়েছে দেশটি। এ জন্য পুরো পরিস্থিতি মূল্যায়ন করা সম্ভব হয়নি। তারপরও স্যাটেলাইটের মাধ্যমে পাওয়া ছবিতে রোহিঙ্গাদের গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়া, রোহিঙ্গা নাগরিকদের ওপর চালানো বিচারবহির্ভূত হত্যার খবর পেয়েছি। এমনকি রোহিঙ্গা মুসলিমরা পালিয়ে যাওয়ার সময় গুলিবর্ষণ করে তাঁদের হত্যা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY